পৃথিবী বিখ্যাত ৮টি কোম্পানি যাদের শুরুটা হয়েছিলো গ্যারেজ থেকে

সারা পৃথিবী দাপিয়ে বেড়াচ্ছে এই কোম্পানিগুলো অথচ এদের ব্যবসায়িক পথচলা শুরু হয়নি প্রচুর টাকার বিনিয়োগের মাধ্যমে আবার না কোন হাই প্রোফাইল কর্পোরেট অফিস থেকে। শুনলে অবাক লাগলেও সত্যি যে এখনকার সময়ে বিশ্ববিখ্যাত এই কোম্পানিগুলোর পথচলা শুরু হয়েছিলো গাড়ির গ্যারেজ থেকে।

আজকের এই লেখাটি পড়ার মাধ্যমে আমরা জানতে পারবো গ্যারেজ থেকে পথচলা শুরু হওয়া ৮টি বিশ্ববিখ্যাত কোম্পানির কথা।

১. অ্যাপল

সময়টা ১৯৭৬ সালের। ক্যালিফোর্নিয়ার কুপারটিনোতে স্টিভ জবসের বাবা-মা’র গ্যারেজ থেকে যাত্রা শুরু হয় অ্যাপলের। স্টিভ ওজনিয়াকের ডিজাইন করা ‘অ্যাপল আই’ কম্পিউটার ওজনিয়াক এবং স্টিভস জব মিলে তৈরী করতে শুরু করে। মাত্র ত্রিশ দিনেই তারা ৫০টির মতো কম্পিউটার বানিয়ে ফেলে।

শুরু হয়েছিলো গ্যারেজ থেকে, আর আজ কোটি কোটি গ্রাহকের হৃদয় জয় করে অ্যাপল ট্রিলিয়ন ডলারের কোম্পানি।

২. ডিজনী

ডিজনী নিইয়ে একটা গল্প আছে। ডিজনীর প্রতিষ্ঠাতা ওয়াল্ট ডিজনী একদিন একটা পার্কে বসেছিলো। কিন্তু চারপাশের ময়লা আবর্জনা ডিজনী সাহেবের মনটাই খারাপ করে দিলো। তখনই তার মাথায় আসে ডিজনীল্যান্ডের আইডিয়া। সেই আইডিয়া থেকেই ডিজনীল্যান্ডের উদ্ভব।

১৯২০ সালের কথা। ওয়াল্ট ডিজনী ও তার ভাই দুজনেই তখন বেকার। তারা ভাবলো তারা নিজেরাই একটা স্টুডিও খুলবে। আর ভাবতে ভাবতেই আমেরিকার লস অ্যাঞ্জলসে চাচার গ্যারেজেই খুলে বসে স্টুডিও। গ্যারেজে প্রতিষ্ঠা হওয়া সেই স্টুডিওই আজকের এন্টারটেইনমেন্ট জগতের লিজেন্ড কোম্পানি ‘ডিজনী’ ।

 

৩. মাইক্রোসফট

কম্পিউটার ব্যবহার করেছে কিন্তু মাইক্রোসফটের নাম শোনেনি এরকম মানুষ খুঁজে পাওয়া নিশ্চয়ই বড্ড কষ্টকর হবে। বিল গেটস পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী তো এই মাইক্রোসফট দিয়েই।

তবে মাইক্রোসফটের শুরুটা এরকম ছিলোনা। মাইক্রোসফটের জার্নিটাও শুরু হয়েছিলো নিউ মেক্সিকোর একটি ছোট্ট গ্যারেজ থেকে। তখন বিল গেটস ও পল অ্যালেন এর কাছে কাজ করার মত পর্যাপ্ত জিনিসপত্রও ছিলোনা।

৪. এইচপি

হিউলেট-প্যাকার্ড গ্যারেজ।
Photo Source: Slate.com

১৯৩৯ সালের কথা। বিল হিউলেট আর ডেভ প্যাকার্ড মিলে প্যাকার্ড সাহেবের গ্যারেজে এইচপি কোম্পানির শুরু করে। আর এখন?  প্রযুক্তি পণ্যের বাজারে ‘এইচপি’ শব্দটা সবার মুখে মুখে। শুধু তাই নয়, হিউলেট-প্যাকার্ড গ্যারেজকেই আজকের সিলিকন ভ্যালি’র জন্মস্থান বলা হয়।

৫. ডেল

মার্ক জুকারবার্গ কিংবা স্টিভ জবস  যেমন  কলেজ ড্রপআউট ছিলেন ঠিক তেমনি মাইকেল ডেলও একজন কলেজ ড্রপআউট। যিনি কিনা কম্পিউটার বাণিজ্যের অন্যতম শক্তিশালী কম্পানি ডেল এর প্রতিষ্ঠাতা। তিনিও তার এই কোম্পানি শুরু করেছিলেন তার গ্যারেজ থেকে। বর্তমানে ডেল প্রায় ৫০ বিলিয়ন ডলার মূল্যের একটি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান।

 

৬. অ্যামাজন

জেফ বেজস।
Photo Source: Internethistorypodcast.com

বিল গেটসকে ছাড়িয়ে বর্তমানে যিনি বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যাক্তিদের তালিকায় প্রথম স্থানে রয়েছেন তিনি হচ্ছেন টাক মাথার জেফ বেজস। ট্রিলিয়ন ডলারের ‘অ্যামাজন’ কোম্পানির শুরুটা হয়েছিলো অনলাইনে বই বিক্রির মাধ্যমে। আর সেটা করেছিলেন ওয়াশিংটনে নিজের বাড়ির গ্যারেজ থেকে।

৭.  গুগল

শুনতে অবাক লাগলেও এটাও সত্যি। প্রযুক্তি দুনিয়া কাপিয়ে বেড়ানো বিখ্যাত সার্চ ইঞ্জিন কোম্পানি গুগলের হাটি হাটি পা পা করা দিনগুলিও কেটেছে গ্যারেজে। গুগলের দুই প্রতিষ্ঠাতা ল্যারি পেজ ও সার্জেই ব্রিন দুজনে মিলে তাদের এক কলিগ থেকে ক্যালিফোর্নিয়ায় একটি গ্যারেজ  ভাড়া নিয়েই গুগল এর পথচলা শুরু করেন।

৮. নাইক

নাইকের প্রতিষ্ঠাতা ফিল নাইট।
Photo Source: Geektyrant.com

এতো গেলো প্রযুক্তি কোম্পানির কথা। বর্তমান বিশ্বের অন্যতম এক স্পোর্টস কোম্পানি নাইকের প্রতিষ্ঠাতার তো গ্যারেজ ভাড়া নেওয়ার ক্ষমতাও ছিলোনা।

নাইকের শুরু হয়েছিলো একটি গাড়ির ট্রাঙ্ক থেকে। সে জুতা বানাতো আর ইউনিভার্সিটির স্পোর্টস কোচ সেগুলো দৌড়বিদদের দিয়ে ট্রায়াল দেওয়াতো।

Feature Photo Source: Eyerys.com

Leave a comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *