চন্দ্রের পর এবার সূর্য অভিযান

অবশেষে সূর্য কে জানার অদম্য ইচ্ছা পুরন হতে চলল। যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষনা সংস্থা নাসার দীর্ঘদিনের প্রচেষ্টার পর অবশেষে মহাশুন্যের উদ্দেশ্যে উড়াল দিল মহাকাশযান পার্কার (Parker)। গত ১২ আগস্ট যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের কেপ ক্যানাভেরাল থেকে গ্রিনিচ মান সময় সকাল ৭ টা ৩১ মিনিটে ডেলটা ফোর-হেভি রকেটে করে পার্কার কে উৎক্ষেপণ করা হয়।

মহাকাশযান পারকার এর উৎক্ষেপণ; Photo Source: NASA

পার্কার নক্ষত্রে পাঠানো মানুষের প্রথম মহাকাশযান হিসেবে যাত্রা শুরু করল। এটি নির্মান করেছে মেরিল্যান্ডের জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের এপ্লাইড ফিজিক্স ল্যাবরেটরি। এর ব্যাস ৮ ফুট আর আকারে একটি গাড়ির সমান। মহাকাশযানটির গতি রেকর্ড সৃষ্টিকারী, সূর্যের  কাছে পৌছানোর পর এটি ঘন্টায় প্রায় সাত লাখ কিলোমিটার গতিতে ছুটে চলবে! অর্থাৎ যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহর থেকে জাপানের টোকিও পর্যন্ত দুরত্ব অতিক্রম করতে সময় নেবে মাত্র ১ মিনিট!

পার্কারের অভিযান চলবে সাত বছর ধরে। এ অভিযানের সময়ে এটি সূর্যের চারপাশের বেষ্টনী ২৪ বার অতিক্রম করবে। প্লাজমার এই বেষ্টনী কে বলা হয় করোনা। সূর্যপৃষ্ঠের চেয়ে এখানকার তাপ প্রায় ৩০০ গুন বেশি। তাই এই তাপ থেকে রক্ষার জন্য পার্কারের চারপাশে শক্তিশালী আবরন দেয়া হয়েছে। এটি সরাসরি সূর্যের বায়ুমন্ডল পরিদর্শন করবে। ভ্রমণককালে পার্কার চৌম্বক ক্ষেত্র, প্লাজমা, সোলার উইন্ডের ছবি ক্যাপচার করে পাঠাবে।

করোনা থেকে তেজোদীপ্ত কণা ছুটে এসে সৌরঝড় তৈরি করে। সৌরঝড়ের কারনে অনেক সময় পৃথিবীর চৌম্বকক্ষেত্র বিঘ্নিত হয়। আবার তা বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থায়ও প্রভাব ফেলে। তাই পার্কারের অভিযান সফল হলে সূর্য ও সৌরঝড় সম্পর্কে বিশদ জানা যাবে। ২০২৪ সালে এটি সূর্যপৃষ্ঠের ৬১ লাখ ৬০ হাজার কিলোমিটারের মধ্যে নিজ কক্ষপথে অবস্থান নেবে।

ড. ইউজেন পার্কার; Photo Source: Nverse.com

১৯৫৮ সালে মার্কিন মহাকাশবিজ্ঞানী ও শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের এস্ট্রোনমি এন্ড এস্ট্রফিজিক্স বিভাগের অধ্যাপক ড. ইউজেন পার্কার প্রথম সৌরঝড় সম্পর্কে ধারনা দেন। তাই তার নামানুসারে মহাকাশযানটির নাম দেয়া হয়েছে পার্কার। এটাই প্রথম কোন জীবিত ব্যক্তির নামে পরিচালিত মিশন। পার্কারের প্রাথমিক নাম ছিল সোলার প্রোব প্লাস। পার্কারের একটি চিপে ইউজেন পার্কারের ছবি, গবেষণা নিবন্ধ ও বার্তা রাখা হয়েছে।

পার্কার প্রকল্পে নাসার ব্যয় হয়েছে ১৫০ কোটি মার্কিন ডলার।

তথ্যসূত্রঃ নাসা এবং প্রথম আলো

 

Feature Photo Source: Vox.com

Leave a comment

One thought on “চন্দ্রের পর এবার সূর্য অভিযান

  • August 25, 2018 at 11:07 pm
    Permalink

    pretty well

    Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *